রহমত, মাগপেরাত, নাজাত,

হৃদয়ে ঝরুক মাগফিরাতের বৃষ্টি

আল্লাহ যদি নারাজ হন আমরা যাব কই? রোজা রেখে খোদার কাছে সিজদা দিয়ে রই। রহমতের দশক শেষ হয়ে আজ থেকে শুরু হয়েছে মাগফিরাতের দশক। মাগফিরাত মানে ক্ষমা। গেল দশটি দিন পৃথিবীবাসীর ওপর অঝোর ধারায় রহমতের বৃষ্টি ঝরেছে। এখন ঝরছে ক্ষমার বৃষ্টি। মূলত সৃষ্টিরাজি প্রভুর রহমতের চাদরে ঢাকা।

তাই মাহে রমজানের প্রথম দশ দিন প্রভুর বিশেষ রহমত বর্ষিত হয়। পৃথিবীবাসী এ দশ দিনের জন্য দীর্ঘ একটি বছর মুখিয়ে থাকেন। এ দশ দিনের রহমতের অঝোর ধারার একটি ফোঁটাও যদি কোনো মানুষ জীবনে ধারণ করতে পারে, তাহলে দুনিয়া আখেরাতে সে সফল হয়ে গেল।

বহু মানুষ গত রোজায় বেঁচে ছিল, এ রোজায় নেই। এমনকি রোজার আগেও অনেকে দুনিয়া থেকে চিরদিনের ঠিকানা আখিরাতে পাড়ি জমিয়েছেন। তাদের আমলের খাতাটি বন্ধ হয়ে গেছে। চাইলেও তারা এখন আর একটি নেক আমলও যোগ করতে পারবে না। আল্লাহর দরবারে কোটি কোটি শুকরিয়া, তিনি আমাদের এখনও সুস্থভাবে বাঁচিয়ে রেখেছেন, রোজা রাখার তৌফিক দিচ্ছেন।

গত বছর যারা রোজা পেয়েছিল কিন্তু আজ পৃথিবীর বুকে নেই, তাদের অনেকেই রমজানের সোনালি মুহূর্তগুলো পেয়েও হেলায় নষ্ট করেছে। তারা ভেবেছিল, জীবন অনেক বড়। মৃত্যু বহু দূরে। আরও অনেক সময় তাদের জন্য অপেক্ষা করছে। কিন্তু না, আচমকাই মৃত্যুর গাড়ি তাদের পরকালের বাড়ি নিয়ে গেছে। হাদিস শরিফে এ ধরনের মানুষকে হতভাগ্য মানুষ বলা হয়েছে।

আমরা যারা এখনও বেঁচে আছি কিন্তু প্রভুর বিশেষ রহমতের বৃষ্টি থেকে একটি ফোঁটাও বরাদ্দ করাতে পারিনি, অবহেলায় মূল্যবান মুহূর্তগুলো নষ্ট করেছি, আর ভেবেছি আগামী থেকে ঠিক হয়ে যাব, তাদের অনেকের জীবনেই আর আগামী রমজান আসবে না। যে রহমতের জন্য সৃষ্টিকুল বছরব্যাপী অপেক্ষায় থাকে, সে রহমত গতকাল শেষ হয়ে গেল, কিন্তু আমাদের যারা ভিজতে পারল না, তাদের চেয়ে বড় দুর্ভাগা আর কেউ নেই।

তবে যারা অনুতপ্ত, যারা রহমত হারিয়ে এখন কাতর, তাদের জন্য হতাশার কিছু নেই। গতকাল সন্ধ্যা থেকেই প্রভুর মাগফিরাতের বৃষ্টি শুরু হয়েছে। আমরা রহমতের বৃষ্টি পাইনি, যদি মাগফিরাতের অঝোর বর্ষণ থেকে একটি ফোঁটাও জীবনে ধারণ করতে পারি, জীবনের গোনাহর কথা স্মরণ করে এক ফোঁটা চোখের পানিও প্রভুর কদমে পেশ করতে পারি, তাহলে আশা করা যায়, আমরা এ দশকে সফল হব।

হে আল্লাহ, আমরা বড় অপরাধী। আমাদের গোনাহের কারণেই তোমার আজাব করোনা মহামারী পৃথিবীর বুকে নেমে এসেছে। হে আল্লাহ, তুমি আমাদের ক্ষমা করে দাও। তুমি পৃথিবীকে মহামারীমুক্ত করে শান্তিমতো তোমাকে ডাকার সুযোগ করে দাও। আমরা যেন তোমার কথামতো তোমার নবীর বাতলানো পথে জীবনযাপন করতে পারি।

লেখক : মোঃইমরান খাঁন,

ইয়া আল্লাহ আমাদের কে ক্ষমা করে দাও।

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s